লাইফস্টাইল

অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া ভাতিজাকে নিয়ে ঘর ছাড়লেন চাচি

গাজীপুরে প্রে’মের টানে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক কি’শোরকে নিয়ে ঘর ছেড়েছেন এক গৃহবধূ। ওই নারী স’ম্পর্কে কি’শোরের প্রতিবেশী চাচি। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। মোবাইলে গেম খেলতে পাশে চাচির বাড়িতে যাওয়া-আসা, সেই সূত্রেই তাদের মধ্যে গড়ে উঠে প্রে’মের স’ম্পর্ক। শুরুতে প্রে’মের টানে চাচির হাত ধরে চলে যাওয়ার বিষয়টি বুঝতে না পারলেও পু’লিশ ওই কি’শোর প্রে’মিক ও চাচি প্রে’মিকাকে উ’দ্ধারের পর বিষয়টি সামনে চলে আসে। এ ঘটনা দুই পরিবারকেই ভাবিয়ে তুলেছে। তারা অ’বাক ও বিব্রত হয়েছেন চাচি-ভাতিজা কা’ণ্ডে।

জানা গেছে, ১৪ বছর বয়সী ওই স্কুলছাত্র এবার অষ্টম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিও পেয়েছে। তার বাড়ি কালীগঞ্জ উপজে’লায়। বাবা সৌদি আরব প্রবাসী। দুই ভাই আর এক বোনের মধ্যে সে সবার বড়। থা’না ও পরিবার সুত্র থেকে জানা যায়, গত ২৩ অক্টোবর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় অয়ন। তারপর ২৪ অক্টোবর পরিবারের পক্ষ থেকে থা’নায় জিডি করা হয়। জিডির সূত্র ধরে প্রযু’ক্তি ব্যবহার করে মোবাইল ট্রেকিংয়ের মাধ্যমে তাদের ঢাকার নাখালপাড়া থেকে উ’দ্ধার করা হয়। ওই সময় কি’শোরের সঙ্গে পাওয়া যায় ২০ বছর বয়সী সেই প্রে’মিকা চাচিকে। সেখানে তারা একটি ভাড়া বাড়ির সন্ধান করছিলেন।

চাচির সঙ্গে বাড়ি ছাড়া ওই কি’শোর জানায়, করো’নার সময় পাশ্ববর্তী চাচির বাড়িতে গিয়ে ওয়াইফাই দিয়ে মোবাইল ফোনে গেইম খেলতো সে। এভাবে প্রতিদিন যেতে যেতে চাচি তাকে প্রে’মের প্রস্তাব দেন। পরে কিছু না বুঝেই সে রাজি হয়ে যায়। তিন-চার মাসের প্রে’ম চলে। এরমধ্যে চাচিকে নিয়ে বিভিন্নস্থানে ঘুরতেও যায় ওই কি’শোর।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) কালীগঞ্জ থা’নার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইস’লাম বলেন, থা’নায় নিখোঁজের জিডির অনুসন্ধানে গিয়ে তাদের রাজধানী ঢাকার নাখালপাড়া থেকে উ’দ্ধার করি। প্রাথমিকভাবে তারা স্বীকার করেছে প্রে’মের টানে ঘরে ছেড়েছে। তবে এ ঘটনার পর দুইপক্ষের অ’ভিভাবকের কাছে দুজনকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Related Articles

Close