জাতীয়

যেভাবে ফাঁদে ফেলতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর!

নিজের উদ্দেশ্য হাসিলে যেকোনো প’ন্থা ব্যবহার করতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। কখনো সখ্য তৈরি করে ব্ল্যা’কমে’ইল করে আবার কখনো ব্যক্তিগত সা’ইবা’র টিম ব্যবহার করে আবার কখনোবা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সাথে ছবি তুলে তিনি নিজের টার্গেট পুরো করতেন। এসব করে অর্থ উপার্জনের পাশাপাশি খ্যাতিও অর্জন করতে চেয়েছিলেন হেলেনা।

তবে গ্রে’ফ’তারে পর আপাতত তিনি রি’মা’ন্ডে আছেন। জানা গেছে, উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ফাঁ’দে ফেলতে প্রথমে টার্গেট করতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। এরপর তার সাথে কৌশলে সখ্য গড়ে তুলতেন। সেই সখ্যের সুযোগ নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে তিনি এমন মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিতেন দাবি করেছে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

এছাড়া জয়যাত্রা ফাউন্ডেশনের নামে মানুষকে জিম্মি করে চাঁদা আদায় এবং জয়যাত্রা টিভির মাধ্যমে দেশ-বিদেশে প্রতিনিধি নিয়োগের নামে বেতনের পরিবর্তে নিয়োগকৃতদের কাছ থেকে চাঁদা নিতেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীর। তার রয়েছে নিজস্ব সা’ইবার টিমও।

যারা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার প্র’চারণা চা’লাত। কেউ তাকে নিয়ে কোনো নেতি’বাচক মন্তব্য করলে তাদের ঘা’য়ে’ল করার দায়িত্ব ছিল ওই সা’ইবার টি’মের। ওই সা’ইবার টি’মে রয়েছে ১৫-২০ জন। এদিকে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরু’দ্ধে রাজ’ধানীর পল্লবী থা’নায় আ’রেকটি মা’মলা করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে তার গুলশান-২ এর ৩৬ নম্বর রোডের হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসভবনে অ’ভিযান শুরু করে র্যাব। দীর্ঘ চার ঘণ্টা অভিযান শেষে রাত ১২টার দিকে তাকে আ’টক করে র্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। পরের দিন শুক্রবার সন্ধ্যায় গুলশান থা’নায় পু’লিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। বর্তমানে তিনি রি’মান্ডে রয়ে’ছেন।

Related Articles

Close